জেলা পর্যায়ে দিবস উদযাপন

ঢাকা
জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস - ২০১৪ উপলক্ষে ঢাকা জেলা লিগ্যাল এইড কমিটি ব্যাপক কর্মসূচী গ্রহণ করে। দিবসকে কেন্দ্র করে সাধারণ জনগণের মাঝে আইনগত সহায়তার বার্তা পৌঁছে দিতে এপ্রিল মাসের তৃতীয় সপ্তাহ হতে ঢাকায় সপ্তাহব্যাপী বিশেষ প্রচারণা অভিযান পরিচালনা করা হয়।প্রচারণার মধ্যে পোস্টারিং, লিফলেট বিতরণ, ব্যানার ফেস্টুন টাঙ্গানো, সাইনবোর্ড স্থাপন এবং সাংবাদিকদের মধ্যে প্রেস রিলিজ বিতরণ উল্লেখযোগ্য।২৮ এপ্রিল সকালে দিবসকে স্বাগত জানিয়ে জেলা কমিটির চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে একটি বিশাল বর্ণাঢ্য র‌্যালী ঢাকা জজ কোর্ট ভবন হতে শুরু হয়ে জনসন রোড, রায়সাহেব বাজার, ভিক্টোরিয়া পার্ক ও শাঁখারী বাজার পদক্ষিণ করে।নানা শ্রেণী ও পেশার মানুষসহ মানবাধিকার ও পেশাজীবী সংগঠনের স্বর্ত:স্ফুর্ত অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত র‌্যালীটি বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলে সম্প্রচার করা হয়।‌ র‌্যালী শেষে দিনব্যাপী একটি লিগ্যাল এইড ক্যাম্পের আয়োজন করা হয়। লিগ্যাল এইড ক্যাম্পে ব্যাপক জনসমাগম হয় এবং অনেকে ক্যাম্প হতে নানারকম আইনি সেবা গ্রহণ করে। লিগ্যাল এইড ক্যাম্পের পাশাপাশি লিগ্যাল এইড বিষয়ক শর্টফিল্ম ও ডকুমেন্টারী প্রদর্শিত হয় যা সর্বস্তরের মানুষের নজর কাড়ে। এছাড়া বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির সহায়তায় জজকোর্ট প্রাঙ্গনে স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচীর আয়োজন করা হয়। বিকেলে জগন্নাত-সোহেল স্মৃতি মিলনায়তনে দিবসের তাৎপর্য বিষয়ে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। বিচারক, আইনজীবী, জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, কারা প্রশাসনসহ বিভিন্ন সরকারি কর্মকর্তা, বার নেতৃবৃন্দ, এনজিও প্রতিনিধি, কোর্ট স্টাফ এবং গণমাধ্যমের কর্মীগণ সভায় অংশগ্রহণ করেন।আলোচনা সভায় জেলা ও দায়রা জজ মোঃ আব্দুল মজিদ, মহানগর দায়রা জজ জহুরুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শ্যামল কুমার মূখার্জি, বিএনডব্লিউএলএ’র নির্বাহী পরিচালক এডভোকেট সালমা আলী, জেএফএ’র চীফ অব পার্টি সান্ড্রা ফেইনজিগ, জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার সাব্বির মাহমুদ প্রমূখ বক্তৃতা করেন।
 
কিশোরগঞ্জ
বিপুল উৎ সাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস উদযাপিত হয়েছে।জেলা আদালত ভবন থেকে বর্ণাঢ্য র‌্যালী বের করে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জেলা জজ আদালতে গিয়ে শেষ হয়।পরে দিনব্যাপী লিগ্যাল এইড মেলা অনুষ্ঠিত হয়।বিকেলে দিবসটির তাৎপর্য তুলে ধরে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির চেয়ারম্যান ও জেলা ও দায়রা জজ আ.ম.মো:সাঈদ এর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক জনাব মো: সাদিক গোলাম সারওয়ার, জেলা প্রশাসক জনাব এস.এম আলম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক জনাব মোহাম্মদ আব্দুল ওয়াদুদ চৌধুরী, পুলিশ সুপার মো: আনোয়ার হোসেন খান, চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো: গোলাম সারওয়ার, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি শাহ আজিজুল হক এবং জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো: সহিদুল আলম শহীদ।এছাড়াও সারা বছর লিগ্যাল এইড মামলার ক্ষেত্রে দায়িত্বশীলতার সহিত কাজ করার জন্য দেওয়ানী মামলা পরিচালনায় এ্যাডভোকেট শামছুন্নাহার কাজল এবং ফৌজদারী মামলা পরিচালনায় এ্যাডভোকেট খায়রুল আলম চৌধুরীকে সেরা আইনজীবীর পুরস্কার প্রদান করা হয়।
 
মানিকগঞ্জ
‘গরিবের মামলা ভার, বহন করে সরকার’- এ স্লোগানকে উপজীব্য করে মানিকগঞ্জে বিপুল উৎ সাহ-উদ্দীপনায় জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস উদযাপিত হয়। এ উপলক্ষে জেলা তথ্য অফিসের সহায়তায় বিভিন্ন উপজেলা ও ইউনিয়নে ব্যাপক মাইকিং করা হয়।সকালে একটি জেলা কমিটির নেতৃত্বে পাঁচ শতাধিক মানুষের অংশগ্রহণে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালী বের করা হয়।মানিকগঞ্জ পুলিশের একটি বাদক দল র‌্যালীকে আকর্ষণীয় ও দৃষ্টিনন্দন করে তোলে।জেলা সিভিল সার্জনের সহায়তায় জেলা জজ আদালত ভবনে স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচীর আয়োজন করা হয়।বিকালে অনুষ্ঠিত আলোচনায় সভায় আলোচকগণ সরকারি খরচে দরিদ্র ও অসহায় মানুষদের আইনগত সহায়তা প্রাপ্তির বিষয়ে জনসচেতনতা বৃদ্ধি ও সাধারণ জনগণের জন্য সহজে আইনগত সহায়তা নিশ্চিতকরণে পদক্ষেপ নিতে সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা প্রত্যাশা করা হয়।জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির চেয়ারম্যান ও জেলা ও দায়রা জজ জনাব এ.কে.এম মোস্তফার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভার শেষে একজন আইনজীবীকে সেরা লিগ্যাল এইড আইনজীবী হিসেবে পুরষ্কৃত করা হয়।
 
নারায়নগঞ্জ
নারায়নগঞ্জ জেলা লিগ্যাল এইড কমিটি নানাকর্মসূচীর মধ্য দিয়ে জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস-২০১৪ উদযাপন করে।এসব কর্মসূচীর মধ্যে মাইকিং কার্যক্রম, পোস্টারিং, র‌্যালী, স্বেচ্ছায় রক্তদান, আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও ম্যাগাজিন প্রকাশ উল্লেখযোগ্য।২৮ এপ্রিল সকালে নারায়নগঞ্জ শহরের প্রাণকেন্দ্র চাষাড়া জিয়া হল প্রাঙ্গন হতে জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবসকে স্বাগত জানিয়ে ‌র‌্যালী শুরু হয়।জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ্ আল-আমিনের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত র‌্যালীতে জেলা প্রশাসক মনোজ কান্তি বড়াল অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাজ্জাদুর রহমানসহ বিচারক, প্যানেল আইনজীবী, বার নেতৃবৃন্দ, আইন কলেজের ছাত্র- ছাত্রী এবং কোর্ট স্টাফগণ অংশগ্রহণ করেন।জেলা স্কাউটস এর ১০০ চৌকস সদস্য র‌্যালীকে আকর্ষণীয় করে তুলে।জেলা কমিটির উদ্যোগে জজকোর্ট প্রাঙ্গনে দিনব্যাপী রক্তদান কর্মসূচী উদযাপিত হয়।সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ আব্দুল্লাহ্ আল-আমিনসহ বিচারক এবং আইনজীবী সমিতির সদস্যগণ রক্তদান করেন।এতে ৫০ ব্যাগ রক্ত সংগৃহীত হয়। বিকালে দিবসের তাৎপর্য বিষয়ক আলোচনা সভায় জেলা ও দায়রা জজ, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক, চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটসহ আইনজীবী নেতৃবৃন্দ বক্তৃতা করেন।
 
ফেণী
ফেণী জেলা লিগ্যাল এইড কমিটি ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস উদযাপন করে। দিবসটি স্বাগত জানিয়ে সকালে অনুষ্ঠিত র‌্যালীতে বিচার বিভাগীয় কর্মকর্তা ও আইনজীবীসহ বিভিন্নস্তরের মানুষ স্বত:স্ফুর্তভাবে অংশগ্রহণ করে।র‌্যালী পরবর্তী সময়ে স্বেচ্ছায় রক্তদানসহ বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা কর্মসূচীর আয়োজন করা হয়।এছাড়া জজকোর্ট প্রাঙ্গনে দিনব্যাপী লিগ্যাল এইড মেলা অনুষ্ঠিত হয়।বিকালে জেলা কমিটির চেয়ারম্যান এবং জেলা ও দায়রা জজ দেওয়ান মোঃ সফিউল্লাহ্র সভাপতিত্বে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।আলোচনা সভায় চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মফিজুর রহমান ভূঞা, ফেনী জেলা পরিষদের প্রশাসক আজিজ আহাম্মদ চৌধুরী, বি.জি.বি ৪ এর সি.ও লেঃ কর্ণেল মাহমুদ-উল নবী, সিভিল সার্জন ডাঃ জাকির হোসেনসহ বিচার বিচাগ, জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, কারা প্রশাসন, আইনজীবী সমিতির নেতৃবৃন্দ, ইউএনও, উপজেলা চেয়ারম্যান, ভাইস-চেয়ারম্যান প্রমূখ বক্তৃতা করেন। অনুষ্ঠানে এডভোকেট মোঃ আব্দুস সাত্তারকে সেরা প্যানেল আইনজীবী হিসেবে ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠান শেষে লিগ্যাল এইড বিষয়ক নাটিকা প্রদর্শন করা হয় এবং বিভিন্ন শিল্পীদের গান ও নাচ পরিবেশিত হয়।
 
শেরপুর
শেরপুরে বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস পালিত হয়।প্রস্ততি সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী জেলা শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে দিবস বিষয়ক পোস্টার, লিফলেট ইত্যাদি সাঁটানো হয়।উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে ব্যাপকভাবে মাইকিং করা হয়।জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির চেয়ারম্যান রবিউল হাসানের নেতৃত্বে প্রায় ৪০০ জন মানুষের অংশগ্রহণে সকালে দিবসটি উপলক্ষে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালী অনুষ্ঠিত হয়। জেলা কমিটির চেয়ারম্যান রবিউল হাসানের সভাপতিত্বে বিকালে অনুষ্ঠিত দিবসের তাৎপর্য বিষয়ক আলোচনা সভায় নারী ও শিশু নির্যাদন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক অমূল্য কুমার সরকার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোঃ হায়দর আলী, আইনজীবী সমিতির সভাপতি এডভোকেট মোঃ রফিকুল ইসলাম আধারসহ বিভিন্ন স্তরের প্রতিনিধিগণ বক্তৃতা করেন। আলোচনা শেষে জেলা তথ্য অফিসের সহায়তা ২(দুই) টি শর্ট ফিল্ম প্রদর্র্শিত হয়।
 
টাঙ্গাইল
জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস-২০১৪ উদযাপন উপলক্ষ্যে টাঙ্গাইল জেলা কমিটি ব্যাপক কর্মসূচী গ্রহণ  করে।এ উপলক্ষ্যে র‌্যালী, আলোচনা সভা, স্বেচ্ছারক্তদান কর্মসূচী, লিগ্যাল এইড মেলা ইত্যাদি আয়োজন করা হয়।র‌্যালী কমিটির চেয়ারম্যান জনাব মুহম্মদ মাহবুব-উল হক এর নেতৃত্বে সকালে অনুষ্ঠিত র‌্যালীটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে। জেলা কমিটির সদস্য, বিচারকমন্ডলী, জেলা প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ, প্যানেল আইনজীবী, বার ও প্রেস ক্লাবের নেতৃত্ববৃন্দ, সহ বিভিন্ন এনজিও প্রতিনিধিগণ র‌্যালীটি অংশগ্রহণ করেন।জেলা কমিটির উদ্যোগে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালের সহায়তায় দিনব্যাপী স্বেচ্ছারক্তদান কর্মসূচী পালিত হয়।এতে বিচারকসহ ২১জন ব্যাক্তি স্বেচ্ছা রক্তদান করে।জজ কোর্ট প্রাঙ্গণে দিনব্যাপী একটি লিগ্যাল এইড মেলার আয়োজন করা হয়।মেলায় লিগ্যাল এইড অফিসসহ বিভিন্ন এনজিও অংশগ্রহণ করে।বিকেলে দিবসটির তাৎপর্য উপলক্ষ্যে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।জেলা ও দায়রা জজের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় সরকারী আইনি সেবা দানকারী সকল ব্যাক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সাথে দায়িত্ব পালন করে লিগ্যাল এইড কার্যক্রমকে এগিয়ে নেওয়ার আহ্বন জানান।
 
সাতক্ষীরা
সাতক্ষীরা জেলা লিগ্যাল এইড কমিটি বিভিন্ন অনুষ্ঠানমালার মধ্য দিয়ে জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস-২০১৪ উদযাপন করে। দিবসটি উদযাপন উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা, র‌্যালী, রক্তদান কর্মসূচী, সেরা প্যানেল আইনজীবী পুরষ্কার ও স্মরনিকা প্রকাশ করা হয়।বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনায় নানা শ্রেণী ও পেশার মানুষের অংশ গ্রহণে রঙ-বেরঙের ব্যানার, ক্যাপ, ফেস্টুন ও প্ল্যাকার্ড সম্বলিত সুসজ্জিত র‌্যালী অনুষ্ঠিত হয়। র‌্যালী শেষে সদর হাসপাতালের সহায়তায় জজ কোর্ট ভবনে এক রক্তদান কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হয়। রক্তদান কর্মসূচীতে বিচারক, আইনজীবী, জজশীপ ও ম্যাজিষ্ট্রেসীর ষ্টাফসহ বিভিন্ন স্তরের শিক্ষার্থীরা বিনামূল্যে রক্তদান করে। বিকেলে জজকোর্ট প্রাঙ্গনে নির্মিত সুসজ্জিত প্যান্ডেলে দিবসটির তাৎপর্য উপলক্ষ্যে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।জেলা ও দায়রা জজ জনাব মো: ওবায়দুস সোবহান এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় স্থানীয় সংসদ সদস্য ও সাবেক পি.পি, জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, জেল সুপার, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি, প্যানেল আইনজীবীসহ লিগ্যাল এইড মামলার ক্লায়েন্টগণ অংশগ্রহণ করেন।অনুষ্ঠানে লিগ্যাল এইডের মামলা পরিচালনায় অসাধারণ কৃতিত্ব ও মহানুভবতার জন্য ৩জন আইনজীবীকে সেরা প্যানেল আইনজীবী নির্বাচিত করে তাঁদেরকে আনুষ্ঠানিকভাবে সম্মাননা প্রদান করা হয়।এছাড়া সাতক্ষীরা জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির বিভিন্ন সেবা, তথ্য-উপাত্ত ও প্রবন্ধ সম্বলিত একটি স্মরনিকা প্রকাশ করা হয়।
 
নীলফামারী
জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস-২০১৪ উদযাপন উপলক্ষ্যে নীলফামারী জেলা কমিটি ব্যাপক কর্মসূচী গ্রহণ  করে।এ উপলক্ষ্যে র‌্যালী, আলোচনা সভা, ক্লায়েন্ট আইনজীবী সমন্বয় সভা, সেরা প্যানেল আইনজীবী পুরস্কার প্রদান প্রভৃতি উল্লেখযোগ্য।লিগ্যাল এইড কমিটির চেয়ারম্যান নেতৃত্বে সকালে অনুষ্ঠিত র‌্যালীটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে।জেলা কমিটির সদস্য, বিচারকমন্ডলী, জেলা প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ, প্যানেল আইনজীবী, বার ও প্রেস ক্লাবের নেতৃত্ববৃন্দ, সহ বিভিন্ন এনজিও প্রতিনিধিগণ র‌্যালীতে অংশগ্রহণ করেন।জেলা কমিটির উদ্যোগে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালের সহায়তায় দিনব্যাপী স্বেচ্ছারক্তদান কর্মসূচী পালিত হয়।এতে বিচারকসহ ২১জন ব্যাক্তি স্বেচ্ছা রক্তদান করে।জজ কোর্ট প্রাঙ্গণে দিনব্যাপী একটি লিগ্যাল এইড মেলার আয়োজন করা হয়।মেলায় লিগ্যাল এইড অফিসসহ বিভিন্ন এনজিও অংশগ্রহণ করে।বিকেলে দিবসটির তাৎপর্য উপলক্ষ্যে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।জেলা ও দায়রা জজের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় সরকারী আইনি সেবা দানকারী সকল ব্যাক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সাথে দায়িত্ব পালন করে লিগ্যাল এইড কার্যক্রমকে এগিয়ে নেওয়ার আহ্বন জানান। 
 
বগুড়া
বগুড়ায় নানা কর্মসূচী ও উৎসবের মধ্য দিয়ে জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস ২০১৪ উদযাপিত হয়।বগুড়ার জেলা ও দায়রা জজ এবং জেলা কমিটির চেয়ারম্যান মো: মফিজুল ইসলাম এর নেতৃত্বে শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে বর্নাঢ্য র‌্যালী প্রদক্ষিণ শেষে জজশীপ ও ম্যাজিস্ট্রেসীর বিচারকগণ, জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, প্যানেল আইনজীবী, লিগ্যাল এইড ক্লায়েন্ট, এনজিও কর্মীসহ নানা শ্রেণী ও পেশার মানুষের অংশগ্রহণে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আয়োজিত আলোচনা সভায় জেলা ও দায়রা জজ এবং লিগ্যাল এইড কমিটির চেয়ারম্যান জনাব মো: মফিজুল ইসলাম বলেন, দেশের সহায় সম্বলহীন বিচার প্রার্থী ও নির্যাতিতদের সরকার জাতীয় আইনগত সহায়তা প্রদান সংস্থার মাধ্যমে মামলার ব্যয়ভার বহন করে আসছেন। দেশের দরিদ্র জনগোষ্ঠী যাতে ন্যায়-বিচার পায় এ জন্য সরকার আর্থিক সুবিধা দিয়ে আসছেন। এছাড়াও তিনি প্যানেল আইনজীবীদের আন্তরিকতার সাথে দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানান। তিনি বলেন, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে লিগ্যাল এইড কমিটি গঠন করা হলেও সঠিক প্রচারের অভাবে এবং স্থানীয় কমিটি কর্তৃক যথাসময়ে রিপোর্ট না দেয়ার কারণে জেলা কমিটির জন্য বরাদ্দকৃত অর্থ অনেক সময় ফেরৎ যাচ্ছে। এ জন্য তিনি এ সেবার জন্য প্রচারের আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, স্পেশাল জজ (জেলা জজ) মো: মাহতাব উদ্দিন, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল নং ২ এর বিচারক (জেলা জজ) বেগম রাশেদা সুলতানা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল ওয়ারীশ, টিএমএসএস এর নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক ড: হোসনে আরা বেগম, জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার মো: ইসমাইল হোসেন প্রমূখ। আলোচনা অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন, ল্যান্ড সার্ভে ট্রাইব্যুনাল এর বিচারক (যুগ্ম জেলা জজ) মো: আমিরুল ইসলাম।
 
সিরাজগঞ্জ
সিরাজগঞ্জ জেলায় জেলা আইনগত সহায়তা প্রদান কমিটি এবং জেলা ও দায়রা জজ মো: আব্দুস সালেক এর নেতৃত্বে সকল জজ, জুডিসিয়াল ম্যাজেস্ট্রেট, জেলা কমিটির সকল সদস্যগণ, প্যানেল আইনজীবী, বিচার প্রার্থী জনগণ, বেসরকারি সংস্থা ও অত্র জেলার সর্বস্তরের জনসাধারণের অংশগ্রহণে বর্ণাঢ্য র‌্যালী শেষে আলোচনা সভা অনুষ্টিত হয়। জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার মো: রেজাউল করিম এর উপস্থাপনায় উক্ত আলোচনা সভায় জেলার চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জনাব জালাল উদ্দিন আহাম্মদ, সিনিয়র সার্জন জনাব মো: মাইন উদ্দিন, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি মো: নূরুর আমীন প্রমূখ উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন। আলোচনা শেষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে ঐতিহ্যবাহী গম্ভীরা পরিবেশিত হয়।
 
খুলনা
জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস উপলক্ষে খুলনা জেলায় দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সকাল ৯:০০ টায় প্রায় ৫০০ জনের সক্রিয় অংশগ্রহণে বর্ণাঢ্য র‌্যালীটি শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থান সমূহে প্রদক্ষিন শেষে আলোচনা সভায় জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির চেয়ারম্যান ও জেলা ও দায়রা জজ জি এম সালাউদ্দিন এর সভাপতিত্বে জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, বিভিন্ন পর্যায়ের বিচারকবৃন্দ, বারের বিজ্ঞ আইনজীবীগণ, সাংবাদিক, প্যানেল আইনজীবী, বিচার প্রার্থী জনগণ ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানসমূহ নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।অনুষ্ঠিত জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস, ২০১৪ উপলক্ষে লিগ্যাল এইড মেলায় লিগ্যাল এইড সংক্রান্ত বিভিন্ন প্রকাশনা প্রচারের মাধ্যমে সাধারণের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধির প্রয়াস গ্রহণ করা হয়। এছাড়াও ল’ক্লিনিক, স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচী ইত্যাদি কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয়।দিনশেষে সেরা প্যানেল আইনজীবীদের মধ্যে ক্রেষ্ট প্রদান করা হয়।
 
দিনাজপুর
দিনাজপুর জেলা আইন লিগ্যাল এইড কমিটির চেয়ারম্যান ও জেলা ও দায়রা জজ দীপ্রমান সরকারের নেতৃত্বে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালী উদ্বোধনের মাধ্যমে জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস উদযাপিত হয়। র‌্যালীতে সভাপতি ছাড়াও, অন্যান্য বিচারকবৃন্দ, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি আজিজুল ইসলাম জুগলুসহ বেসরকারি সংস্থার সদস্যগণ অংশগ্রহণ করেন। জেলা কমিটির চেয়ারম্যান বলেন, আইনের শাসন ও সুবিচার একটি দেশের ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠার পূর্বশর্ত। বক্তারা দরিদ্র জনগোষ্ঠীর আইনসেবা ও আইনের প্রয়োগ সঠিকভাবে করতে সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানান। দেশে চলমান আইনের শাসন যাতে দুঃশাসন না হয় সে বিষয়ে আইন শৃংখলা বাহিনীকে সচেষ্ট থাকতে হবে। বিচার বিলম্বের কারণে যাতে বিচার প্রার্থীরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়রানী না হয় সে বিষয়ে বিচারক ও আইনজীবীদের সহযোগিতার মনোভাব নিয়ে কাজ করলে উপকৃত হবে। সভায় শ্রেষ্ঠ লিগ্যাল এইড প্যানেল এ্যাডভোকেট হিসেবে ক্রেষ্ট প্রদানের মাধ্যমে সংবর্ধনা জানানো হয় এ্যাডভোকেট হরিদাস রায়।                                      
 
নেত্রকোনা
আইনগত সহায়তা দিবস উপলক্ষে নেত্রকোনা জেলা আইনগত সহায়তা প্রদান সংস্থার উদ্যোগে শহরে জেলা ও দায়রা জজ মোঃ আমিরুল ইসলামের নেতৃত্বে বর্ণাঢ্য র‌্যালী অনুষ্ঠিত হয়। বর্ণাঢ্য র‌্যালী শেষে আলোচনায় সভায় বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোঃ আব্দুল হামিদ, অতিরিক্ত জেলা জজ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল ড. এ.কে.এম আবুল কাশেম, জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার এবং যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ জনাব আফিয়া বেগম, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আব্দুর রহিম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার দেলোয়ার হোসেন, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এ্যাডভোকেট শাহ নেওয়াজ ফকির প্রমূখ। এছাড়াও দিবস উদযাপন সফল করতে দিনব্যাপী জেলা জজ আদালত ভবন প্রাঙ্গনে ১টি স্টল নির্মানের মাধ্যমে জেলার অন্যতম বেসরকারি সংস্থা স্বাবলম্বী উন্নয়ন সমিতি লিগ্যাল এইড ফেয়ারের আয়োজন করে। এই স্টল থেকে আগ্রহী ও উৎসাহী বিচার প্রার্থীদের আইনগত সহায়তা বিষয়ে ধারণা প্রদানসহ আবেদন ফরম পূরণ ও লিফলেট বিতরণ করা হয়।
 
জামালপুর
জেলা লিগ্যাল এইড কমিটি জামালপুর এর উদ্যোগে শহরের দয়াময়ী মোড়স্থ শহীদ মিনার হতে প্রস্তাবিত জাজেস কোয়ার্টার পর্যন্ত এক বর্ণাঢ্য র‌্যালীর আয়োজন করা হয়। সকল জজশীপ ও ম্যাজিষ্ট্রেসীর উপস্থিতিতে উক্ত র‌্যালী উদ্বোধন করেন জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির চেয়ারম্যান ও জেলা ও দায়রা জজ বেগম জেসমিন আনোয়ার। এছাড়াও তরঙ্গ মহিলা কল্যাণ সংস্থার পরিচালনায় লিগ্যাল এইড মেলা অনুষ্ঠিত হয়। সেরা আইনজীবী হিসেবে যথক্রমে এ্যাডভোকেট ফজলুর রহমান তরফদার, এ্যাডভোকেট মো: শাহ আলম ও এ্যাডভোকেট এ.কে.এম হারুনর রশীদকে পুরস্কার হিসেবে ক্রেষ্ট ও সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়।
 
বান্দারবান
‘গরিবের মামলার ভার,বহন করে সরকার’এই স্লোগানকে সামনে রেখে দূর্গম পাহাড়ি অঞ্চল বান্দারবান জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির উদ্যোগে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালী আয়োজনা করা হয়। র‌্যালীটি আদালত ভবন থেকে শুরু হয়ে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে গিয়ে শেষ হয়। চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট (ভারপ্রাপ্ত) বেগম সৈয়দা আমিনা ফারহিন এর নেতৃত্বে সকল পর্যায়ের সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাগণ র‌্যালীতে অংশগ্রহণ করেন। র‌্যালী শেষে আলোচনা সভায় গরীব-দু:খি বিশেষভাবে পাহাড়ী জনগোষ্ঠীর জন্য লিগ্যাল এইড এর সেবা সঠিকভাবে পৌছে দেয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির চেয়ারম্যান মো: শফিকুর রহমান আহ্বান জানান। দিবসের তাৎপর্য সম্পর্কে আলোচনা শেষে স্থানীয় নৃ-গোষ্ঠী শিল্পীদের পরিবেশনায়এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়।
 
জয়পুরহাট
জয়পুরহাট জেলায় বর্ণাঢ্য র‌্যালী দিয়ে শুরু হয় জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস উদযাপন। র‌্যালীটি জেলা সদরের উপজেলা পরিষদ চত্ত্বর হতে যাত্রা শুরু করে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে সকাল ৯:৩০ মিনিটে জেলা জজ আদালত প্রাঙ্গণে এসে শেষ হয়। র‌্যালীর শুরুতে দিবসের তাৎপর্য ও স্লোগান সম্বলিত টি শার্ট ও ক্যাপ প্রদান করা হয়। র‌্যালীতে জয়পুরহাট লিগ্যাল এইড কমিটির সকল সদস্যগণ, জেলা জজশীপ, চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, জেলা সিভিল সার্জন অফিস, জেল সুপারের কার্যালয়, জেলা তথ্য অফিস, জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়, জেলা এনজিও সমন্বয় পরিষদ, জেলা মহিলা সংস্থা, জেলা আইনজীবী সমিতি ও বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনসহ আপামর জনসাধারণ অংশগ্রহণ করেন। র‌্যালী শেষে আলোচনা সভায় সরকারি খরচে আইনগত সহায়তা পাওয়ার বিভিন্ন দিক ও বাস্তব ভিত্তিক নানা সমস্যার কথা তুলেধরে বিস্তারিত আলোচনা করেন। এছাড়াও আয়োজিত লিগ্যাল এইড মেলা থেকে সরকারি আইনগত সহায়তা সংক্রান্ত বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ তথ্যাদি প্রচার করা হয়। উল্লেখ্য যে, দিবস উদযাপন উপলক্ষে তিনজন প্যানেল আইনজীবীকে সেরা আইনজীবী নির্বাচিত করে ক্রেষ্ট প্রদান করা হয়।
 
পটুয়াখালী
বিপুল উৎসাহ উদ্দিপনার মধ্য দিয়ে পটুয়াখালী লিগ্যাল এইড কমিটির উদ্যোগে জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস পালিত হয়। র‌্যালী, লিগ্যাল এইড মেলা, স্বেচ্ছায় রক্তদান ইত্যাদি কর্মসূচীর মাধ্যমে দিবস উদযাপন করা হয়। দিবসের তাৎপর্য সম্পর্কে আলোচনায় সভায় লিগ্যাল এইড কমিটির চেয়ারম্যান এর সভাপতিত্বে জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট, অতিরিক্ত জেলা জজ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, জেলা বারের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।
 
পঞ্চগড়
বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনা ও সমারোহের মধ্য দিয়ে পঞ্চগড় জেলা কমিটি জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস ২০১৪ উদযাপন এবং দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরে বিভিন্ন অনুষ্ঠানমালা ও কর্মসূচীর আয়োজন করে। অনুষ্ঠানমালার মধ্যে রয়েছে পঞ্চগড় জেলা ও দায়রা জজ মহোদয়ের নেতৃত্বে জেলার প্রধান সড়কে বর্ণাঢ্য র‌্যালি, দেয়ালিকা উন্মোচন, সিভিল সার্জনের নেতৃত্বে স্বেচ্চায় রক্ত দান কর্মসূচী, গুরুত্বপূর্ন ও দর্শনীয় স্থানে পোস্টারিং, মাইকিং, ক্লায়েন্ট ও আইনজীবীদের নিয়ে যৌথসভা, জেলা কমিটি ও স্থানীয় এনজিওদের সমন্বয়ে সামাজিক অপরাধ প্রতিরোধক ও প্রতিকার সংক্রান্ত নাটক মঞ্চস্থ করা হয়। এছাড়াও ২০১৩ সালের সেরা প্যানেল আইনজীবী পুরস্কার প্রদান, জারিগান এবং ফ্রি লিগ্যাল এইড ক্লিনিক পরিচালনা করা হয়। 
 
ঠাকুগাঁও
ঠাকুরগাঁও জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির চেয়ারম্যান এবং জেলা ও দায়রা জজ জনাব সৈয়দ এনায়েত হোসেন এর  সভাপতিত্বে বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে ঠাকুরগাঁও জেলায় ২য় বারের মত জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস ২০১৪ উদযাপন করা হয়। দিবস উদযাপন উপলক্ষ্যে ঠাকুরগাঁও জেলা লিগ্যাল এইড কমিটি বিভিন্ন অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করে। দিবসকে তাৎপর্যপূর্ন করা লক্ষ্যে ২৮ এপ্রিলের পূর্ব থেকেই মাইকিং কার্যক্রম শুরু করে এবং উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে জনগ্যরত্বিপূর্ন স্থানে পোস্টারিং করা হয়। এছাড়াও জেলা ও দায়রা জজ মহোদয়ের নেতৃত্বে জেলার প্রধান প্রধান সড়কে ব্যান্ডদল ও বাদ্যযন্ত্র নিয়ে কমিটির সকল সদস্য ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে বর্ণাঢ্য র‌্যালির আয়োজন করে এবং র‌্যালি শেষে দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।
 
নাটোর
‘গরিবের মামলার ভার, বহন করে সরকার”এই স্লোগানকে সামনে রেখে নাটোর জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির নেতৃত্বে ২৮ এপ্রিল জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস পালিত হয়। স্লোগান সম্বলিত টি’শার্ট পরে এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রায় নেতৃত্ব দেন জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির চেয়ারম্যান ও জেলা ও দায়রা জজ জনাব জাহিদুল ইসলাম। শোভাযাত্রায় অংশ নেয়া অন্যান্যদের মধ্যে ছিলেন জেলা প্রশাসক জনাব মো: জাফর উল্লাহ, জজশীপের বিচারবৃন্দ, প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ, আইনজীবীগণ, বেসরকারি সংস্থার নেতৃত্ববৃন্দ ও লিগ্যাল এইডের ক্লায়েন্টগণ। শোভাযাত্রা ও লিগ্যাল এইড মেলা উদ্বোধন শেষে বিকাল ৩ টায় নাটোর জেলা আইনজীবী সমিতি ভবনের ২য় তলায় দিবসের তাৎপর্য নিয়ে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনায় বিচার প্রার্থীদের আইনি সেবা নিশ্চিত করার পাশাপাশি প্রচারণার উপর গুরুত্ব প্রদান করা হয় এবং প্রত্যেক বিচার প্রার্থী যেন ন্যায়-বিচার প্রাপ্তির ক্ষেত্রে কোনরূপ বিরম্বনার সম্মুখীন হতে না হয় সেদিকে সবাইকে সজাগ থাকার আহ্বান জানানো হয়। আলোচনা সভা শেষে সাংস্কৃতিক নাট্যগোষ্ঠী ঈঙ্গিত থিয়েটার এর প্রযোজনা ও পরিচালনায় নাটক মঞ্চস্থ ও প্রদর্শনের মাধ্যমে দিবস উদযাপনের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।
 
ঝালকাঠি
মহাসমারোহে ঝালকাঠি জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির আয়োজনে জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস উদযাপিত হয়। দিবস উদ্যাপনের শুরুতেই একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালী শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ও ভারপ্রাপ্ত জেলা ও দায়রা জজ জনাব কিরণ শংকর হালদারের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) জনাব মো: সোহেল আহম্মেদ, পুলিশ সুপার জনাব মো: মজিদ আলী, সিভিল সার্জন জনাব মো: মাসুম আলী, ঝালকাঠি জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি জনাব এম.এ মান্নান রসুল, সাধারণ সম্পাদক জনাব মো: এম.আলম খান কামাল, ঝালকাঠি জেলা জজশীপের বিচারকবৃন্দ, সরকারি অন্যান্য কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণ, বারের আইনজীবীগণ, এনজিও প্রতিনিধিবৃন্দ, লিগ্যাল এইড ক্লায়েন্ট ও তৃণমূল পর্যায়ের অনেকে উপস্থিত ছিলেন। আলোচনায় সভায় আলোচকবৃন্দ বলেন, লিগ্যাল এইড প্রাপ্তি একজন লিগ্যাল এইড প্রত্যাশির আইনগত অধিকার, এটি তার প্রতি কোন করুনা নয়। সুতরাং যথেষ্ট দরদ দিয়ে লিগ্যাল এইড এর মামলাগুলো সংশ্লিষ্ট সকলের করতে হবে এবং অযথা যেন কেউ হয়রানির শিকার না হয় সেদিকেও লক্ষ রাখার উপর জোড় দেয়া হয়।
 
কুড়িগ্রাম
বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে কুড়িগ্রাম জেলায় লিগ্যাল এইড দিবস উদযাপিত হয়। দিবস উপলক্ষ্যে ৬০০ জনের অংশগ্রহণে এক বিশাল বর্ণাঢ্য র‌্যালী শহরে প্রদক্ষিণ করে। র‌্যালী শেষে আলোচনা সভায় অংশগ্রহণকারীগণ লিগ্যাল এইড উপলক্ষে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য অর্জন করেন এবং লিগ্যাল এইডের মামলায় কিভাবে গরিব, অসহায় ও দু:স্থ জনগণ সেবা পাচ্ছে সেটিও আলোচনায় চলে আসে। লিগ্যাল এইড দিবস উপলক্ষে আয়োজিত সিভিল সার্জনের সহযোগিতায় উক্ত মেলায় স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচীর আয়োজন করা হয়। এছাড়াও লিগ্যাল এইড মেলা হতে বিচার প্রার্থী জনগণ ও সাধারন মানুষ সবাই বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সংগ্রহের মাধ্যমে পরিতৃপ্ত মন নিয়ে দিবস উদযাপন শেষ করতে সক্ষম হয়।
 
তথ্য: 
তথ্য আপা প্রকল্প