অটিজমের বিভন্ন বয়সে চিহ্ন

তিন মাস বয়সেঃ
  • উচ্চ শব্দে কোন প্রতিক্রিয়া করে না
  • চলমান বস্তুর প্রতি মনযোগী না হওয়া।
  • কাউকে দেখে হাসে না
  • বু বু শব্দ বা babble করে না।
  • নতুন মুখ দেখার ক্ষেত্রে মনযোগী না।
  • মুখের কাছে তার হাত আনে না।
সাত মাস বয়সেঃ
  • কোন জায়গা থেকে শব্দ আসলে সেই শব্দ কোথা থেকে আসছে তা জানার জন্য ঘাড় ঘুরায় না।
  • আপনার বা কাছের মানুষের প্রতি কোন ভালোবাসা প্রকাশ করবে না
  • হাসবে না
  • লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারবে না
  • কর্মকাণ্ডের দ্বারা অন্যের মনোযোগ আকর্ষণের জন্য চেষ্টা করবে না।
  • খেলাধুলায় অনাগ্রহী
  • কোন কিছু আঁকড়ে ধরে না
  • কোন আওয়াজ করবে না
৯ মাস বয়সেঃ
  • আপনার নির্দেশিত পয়েন্ট এ দৃষ্টিপাত করবে না।
  • নিজের নামে কোন প্রকার সাড়া দেবে না
  • কোন বু বু , বাবা, মামা, টাটা এ ধরনের আওয়াজ করবে না।
  • পেছনের খেলা খেলে না
  • পরিচিত মানুষদের চিনতে পারে বলে মনে হয় না।
  • সাহায্য নিয়ে বসে না
  • পায়ের সাহায্যে ওজন বহন করতে পারে না।
  • এক হাত থেকে অন্য হাতে খেলনা পরিবর্তন করতে পারে না।
১২ মাস বয়সেঃ
  • হামাগুড়ি দেবে না
  • একটা শব্দও বলবে না
  • কোন অঙ্গ ভঙ্গি  করে না। যেমন মাথা দোলানো বা মাথা নাড়ানো, টাটা দেয়া, হ্যাঁ বা না বোধক মাথা নাড়ানো ইত্যাদি।
  • কোন ছবি বা বস্তুর দিকে নির্দেশ করে না।
  • বার মাস বয়সে কোনো কিছু পাওয়ার জন্য হাত বা দৃষ্টি দিয়ে দেখিয়ে না দেওয়া বা কোনো কিছু আঁকড়ে না ধরা।
  • তাকে দেখিয়ে কোন জিনিস লুকালে তা খোঁজে না।
  • কোন কিছুর সাহায্যে দাঁড়াবে না।
১৮ মাস বয়সে
  • গৃহস্থালি অনেক সাধারন জিনিসের কাজ সম্পর্কে বোঝে না। যেমনঃ টেলিফোন, কাটাচামুচ, চামুচ।
  • অন্যের শব্দ বা কাজ অনুকরণ করবে না
  • সর্বোচ্চ ৬ টি শব্দ শব্দ বলতে পারবে
  • নতুন শব্দ শিখতে পারে না
  • হাঁটতে পারে না
  • পুরনো দক্ষতা যা তার পূর্বে ছিল তা হারিয়ে যায়
২৪ মাস বয়সে
  • হাঁটবে না।আর হাঁটলেও অটলভাবে না।
  • ১৫ টি শব্দের বেশি শব্দও বলতে পারবে না
  • দুই শব্দের বাক্য ব্যাবহার করতে পারে না
  • গৃহস্থালি অনেক সাধারন জিনিসের কাজ সম্পর্কে বোঝে না। যেমনঃ টেলিফোন, কাটাচামুচ, চামুচ।
  • আপনার বা অন্যের শব্দ বা কাজ অনুকরণ করবে না
  • আপনার সাধারন নির্দেশনাবলী মান্য করতে পারেনা
৩ বছর বয়সে
  • অস্পষ্ট কথা
  • একটি বাক্যে কথা বলতে পারে না
  • সাধারন নির্দেশাবলী মানতে পারে না
  • সাধারন খেলনা দিয়ে খেলতে পারে না। যেমনঃ সাধারন ধাঁ ধাঁ ,নব বাকান খেলা,ইতাদি
  • খেলনার প্রতি আকর্ষণ কম
  • অন্য শিশুদের সাথে খেলতে চায় না
  • চোখে চোখ রাখে না
  • সিঁড়ি দিয়ে ওঠা নামায় সমস্যা
  • তার নিজস্ব একসময়ের স্মৃতি ভুলে যায়
চার বছর বয়সে
  • অন্য শিশুদের এড়িয়ে চলে
  • পরিবারের বাইরে অন্য কাউকে গ্রাহ্য করে না।
  • খেলায় কোন আগ্রহ থাকে না।
  • পছন্দের গল্প পুনরায় বলতে পারে না
  • “তুমি” “আমি” এধরনের সর্বনামের ভুল প্রয়োগ
  • “আলাদা” আর “একই” এর পার্থক্য বোঝে না
  • অস্পষ্টভাবে কথা বলে
  • রঙ দিয়ে হিজিবিজি আঁকে না
  • তার নিজস্ব একসময়ের স্মৃতি ভুলে যায়
পাঁচ বছর বয়সে
  • ব্যাপক আকারে তার আবেগ প্রকাশ করতে পারে না
  • বিভিন্ন সময়ে চারিত্রিক ব্যবহার চরম আকারে ক্ষিপ্র হয়ে যায়। (যেমনঃ অযাচিত রাগ, অতিরিক্ত ভয়, অতিরিক্ত দুঃখিত হওয়া, লজ্জা পাওয়া)
  • সামাজিক অবস্থায় নিজেকে খাপ খাওয়ায় না
  • কোন কর্মকাণ্ডে পাঁচ মিনিটের বেশি মনযোগী হয় না
  • কৃত্রিম সাড়া দেয় না।
  • বিশ্বাস বাস্তবতার পার্থক্য নিরূপণ করতে পারে না
  • বিস্তৃত কোন কাজ বা খেলায় অংশ নেয় না
  • নিজের নামের প্রথম ও শেষ অংশ বলতে পারে না
  • সংখ্যা, সর্বনাম, অতীতকালের ব্যাবহার ঠিক ভাবে করতে পারে না
  • দিনের কার্যাবলী বলতে পারে না
  • ছবি আঁকতে পারে না
  • সাহায্য ছাড়া দৈনন্দিন কাজ করতে পারে না। যেমনঃ দাঁত ব্রাশ, হাত ধোয়া, নিজের জামা পড়া ইত্যাদি
  • তার নিজস্ব একসময়ের স্মৃতি ভুলে যায়
বয়ঃসন্ধি ও বড়বয়সের অটিস্টিকদের
  • সামাজিক দক্ষতা অর্জনে প্রতিবন্ধকতা
  • চোখে চোখ রাখার বিষয়টি এড়িয়ে চলে
  • দিনের কাজ করার ক্ষেত্রে অনিচ্ছা
  • পুনরাবৃত্তি
  • আলো, শব্দ বা স্পর্শের প্রতি অতিরিক্ত সংবেদনশীল থাকবে কিন্তু ব্যথা পেলেও সে ব্যাপারে উদাসীন থাকবে।
  • তার নিজস্ব একসময়ের স্মৃতি ভুলে যায়
আচরণগত লক্ষণঃ
বিভিন্ন বাচ্চার জন্য অটিজমের লক্ষণ বিভিন্ন হলেও মোটামুটি সাধারণ কিছু উপসর্গ প্রায় সব অটিস্টিক বাচ্চার মাঝেই দেখা যায়। তাদের এই সমস্যাগুলোকে মূলত তিন ভাগে ভাগ করা যায়ঃ–
  • সামাজিক না হবার প্রবণতা
  • ভাষার সমস্যা
  • আচরণের সমস্যা।
সামাজিক না হবার প্রবণতাঃ
  • তাকে নাম ধরে ডাকলে সে জবাব দেবে না।
  • চোখের দিকে কম তাকাবে বা তাকাবে না।
  • এমন ভান করবে যে মনে হবে তাকে উদ্দেশ্য করে বলা কথা সে শুনতে পাচ্ছে না।
  • অন্য কেউ হাত ধরতে গেলে বা জড়িয়ে ধরতে গেলে বাধা দেবে, নিজেকে ছুঁতে দেবে না।
  • জের জগতের বাসিন্দা হয়ে থাকার প্রবণতা থাকবে, সব সময় একলাই খেলবে।
  • কোন কিছুর জন্য সাহায্য চাইবে না বা অনুরোধ করবে না।

 

তথ্য: 
তথ্য আপা প্রকল্প